মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

একনজরে

এক নজরে বরিশাল পওর বিভাগ, বাপাউবো, বরিশাল।

বরিশাল পওর বিভাগ, বাপাউবো, বরিশাল ২৪/১১/১৯৬৯ খ্রিঃ হতে কাজ শুরু করে। এই দপ্তরটি বরিশাল জেলার বরিশাল সদর, বাবুগঞ্জ, বাকেরগঞ্জ, উজিরপুর, বানারীপাড়া, মুলাদি, মেহেন্দীগঞ্জ, হিজলা, গৌরনদী ও আগৈলঝাড়া। এই ১০ উপজেলার সমন্বয়ে গঠিত।  এই জেলায় ১টি সিটি কর্পোরেশন, ৫টি পৌরসভা ও ৮৫টি ইউনিয়ন পরিষদ আছে। এর আয়তন ২৭৮৫ বর্গ কিঃমিঃ এবং সংসদীয় এলাকা ৭টি যার জনসংখ্যা ২৩,৪৮,৪৪০ জন।  এই জেলার মোট আবাদি জমি ১,৯৩,২৮৩ হেকটর, প্রধান অর্থকরী ফসল - ধান, পাট, আখ, পান, ডাল, আমড়া, নারিকেল ও সুপারী। বাপাউবো অত্র অঞ্চলে ৪টি অতি গুরুত্বপূর্ন প্রকল্প যথা সাতলা-বাগদা প্রকল্প, পোল্ডার নম্বর -১, পোল্ডার নম্বর -২, পোল্ডার নম্বর -৩, এবং বাকাই-গৌরনদী-আগৈলঝাড়া-চৌদ্দমাদার বিল উপ-প্রকল্প বাস্তবায়ন করে। উক্ত প্রকল্প বাস্তবায়নের ফলে ২/৩ টা ফসল উৎপন্ন হচ্ছে এবং যাতায়াতের প্রভূত উন্নতি সাধিত হয়েছে। এই জেলার বিভিন্ন উপজেলায় বাপাউবোর অতি গুরুত্বপূর্ন প্রকল্প যথা হিজলা বাঁধ উপ-প্রকল্প, কাকড়াধারী উপ-প্রকল্প, বরিশাল সেচ প্রকল্প, ১ম পর্যায় ও ২য় পর্যায়, সায়েস্তাবাদ বন্যা নিয়ন্ত্রন ও নিস্কাশন উপ-প্রকল্প, পয়সারহাট-রামশীল উপ-প্রকল্প, পাদ্রীসিবপুর উপ-প্রকল্প ও রঘুনাথপুর উপ-প্রকল্প বাস্তবায়ন করে এই জেলায় অধিক ফসল উৎপাদনের কার্যকর ভুমিকা রেখে আর্থ সামাজিক উন্নয়ন সাধিত করেছে। এ ছারাও এই জেলার ভিতর দিয়া প্রবাহিত প্রধান প্রধান নদী যথা কীর্তনখোলা, আড়িয়াল খাঁ, সন্ধ্যা, সুগন্ধ্যা, হলতা, গোমা উল্লেখযোগ্য। এই সকল নদীর ভাঙ্গন হতে অতিগুরুত্বপূর্ন এলাকা বসতি, হাট, বাজার, বন্দর ইত্যাদি স্থাপনা রক্ষার্থে পাউবো বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছে। এছারাও শিরা উপজেলার মত এ জেলায় প্রবাহিত হচ্ছে অসংখ্য খাল। ধান, নদী, খাল এই তিনে বরিশাল। খাল গুলো এ জেলাকে অন্যতম বৈশিষ্টমন্ডিত করেছে। বাপাউবো প্রতিনিয়ত এই খালগুলোর পলি অপসারন করতঃ সদা প্রবাহমান করে রেখে শষ্য উৎপাদনে সেচ সুবিধা প্রদান করে আসছে। বরিশাল পওর বিভাগ, পাউবো বরিশাল কর্তৃক এ পর্যন্ত ১৪,৯১০.১৭ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ১৩ টি বন্যা নিয়ন্ত্রন, নিস্কাশন ও সেচ প্রকল্প ৬ টি তীর সংরক্ষন মূলক প্রকল্প বাস্তবায়িত করেছে। প্রকল্পগুলো বাস্তবায়নের ফলে ৩৩১৭৫ হেঃ বন্যা নিয়ন্ত্রন, ৭১০০ হেঃ নিস্কাশন ও ৫৮৭৬৯ হেঃ সেচ সুবিধা প্রদান করা সম্ভবপর হয়েছে। উক্ত প্রকল্প গুলোর জন্য ২৪৪.৪৯ কিঃমিঃ বাঁধ, ৫৮৬ টি রেগুলেটর/স্লুইস. ৭৮ টি পাম্প হাউজ, ৪৩৮ টি ইনলেট নির্মিত হয়েছে এবং ৩৮৬০ মিটার নদীর তীর সংরক্ষিত হয়েছে। বর্তমানে উক্ত জেলায় ৭টি বন্যা নিয়ন্ত্রন, নিস্কাশন ও সেচ প্রকল্প এবং ৩টি নদী তীর সংরক্ষন উন্নয়ন এবং শহর সংরক্ষন প্রকল্প বাস্তবায়নাধীন আছে।

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter